1. admin@rangpurtoday.com : rangpurt :
আত্মনির্ভরশীল ফ্রিলান্সার মোরশেদ আলম এর সফলতার গল্প - রংপুর টুডে
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩১ অপরাহ্ন

আত্মনির্ভরশীল ফ্রিলান্সার মোরশেদ আলম এর সফলতার গল্প

রংপুর টুডে
  • সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট, ২০২১

পঞ্চগড় প্রতিনিধি,

পঞ্চগড় জেলাধীন আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ডাংগাপাড়া গ্রামের এক তরুণ মোরশেদ আলম পঞ্চগড় মকবুলার রহমান কলেজ এর অনার্স ২য় বর্ষের একজন ছাত্র।

তিনি ২০০০ সালের জানুয়ারী মাসে জন্মগ্রহন করেন। অভাব অনাটনের মাঝে বেড়ে উঠা মোঃ মুরশেদ আলমের।

২০২০ সালের মার্চ মাসে সরকার ফ্রিলান্সিং এ  ট্রেনিং করে বদলিয়ে যায় ভাগ্যের পরিক্রমা।মোঃ মুরশেদ আলম প্রচুর অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে হয়ে উঠেন একজন সফল ফ্রিলান্সার এবং একজন সপ্নবাজ তরুণ উদ্দ্যেক্তা,তিনি আর্ন্তজাতিক বহুজাতিক কোম্পানিতে ফ্রিলান্সার হিসেবে তার দক্ষতা প্রয়োগ এর মাধ্যমে এই কয়েক মাসের ব্যবধানে প্রায় ১০,০০০ ডলার রেমিটেন্স আয় করেন।পাশাপাশি এই সপ্নবাজ তরুন গড়ে তুলেছেন এক আইটি স্লুশন সেন্টার,যার মাধ্যমে তিনি অর্ধশতাধিক ছাত্র/ছাত্রীদের ইতি মধ্যেই প্রশিক্ষন প্রদান করে গড়ে তুলেছেন ফ্রিলান্সার হিসেবে যারা আন্তর্জাতিক অংগনে কাজ করার মাধ্যমে আয় করছেন এখন।

ফ্রিলান্সার মোর্শেদ আইটি সলুশন এর শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন রংপুর টুডে,

তার প্রশিক্ষন প্রাপ্তরা সকলেই অনেক সাচ্ছ্যন্দোবোধ করছে,তার কাছে প্রশিক্ষন করে।অনেকেরই মধ্যে রয়েছে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়,পলিটেকনিক এর নিয়মিত ছাত্র/ছাত্রীরা।প্রশিক্ষন নিচ্ছে প্রবাসি,বেকার তরুণ ও পেশাজীবীরাও,তাদের সাথে রংপুর টুডে যোগাযোগ করলে,সবুজ দেব একজন শিক্ষার্থী জানান (ডিপ্লোমা ইন কম্পিটারে অধ্যায়নরত) আমি এখানে তিন মাস মেয়াদী ওইয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভ্লোপমেন্ট কোর্স করার মাধ্যমে নিজের ভাগ্যকে পরিবর্তন করতে পেরেছ।

আগে আমাকে দিন মজুর,ও রাজমিস্ত্রির কাজ করে পড়াশোনার খরচ চালাতে হতো,এখন আমি ফ্রিলান্সিং শিখে আয় করার মাধ্যমে আমার পরিবার কেউ অনেক সহায়তা করতে পারছি,এরকম সরেজমিনে দেখা গেছে ফ্রিলান্সার মোরশেদ আইটি স্লুশন এ ফ্রিলান্সিং শেখার মাধ্যমে অনেক স্টুডেন্ট আন্তনির্ভরশীল হতে পেরেছে।রাকিবুল,সাইদুর,রবিউল ,সবুজ ,সাকিব সহ তার প্রায় অর্ধশতাধিক প্রশিক্ষন প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এখন ডলার আয় করছে।তার আরেক প্রশিক্ষার্থী মারুফ বিল্লাহ,(১৫) নবম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত ছাত্র,সে বলছে এত অল্প সময়ের আমি ডলার ইনকাম করতে পেরেছি তা কখনোও সপ্নেও কল্পনা করিনি।আমি তিনমাস ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভ্লোবমেন্ট এ ট্রেনিং করার পর তিনটা ছোট কাজ করে প্রায় ১০০ ডলার (ইউএসডি) ইনকাম করেছি,ফাইবার মার্কেটপ্লেস থেকে।আমি প্রতি মাসে ৫০০ ডলার অনায়াসে আয় করতে পারবো,সে দক্ষতা আমি অর্জন করেছি এখানে কোর্স করার মাধ্যমে।

ফ্রিলান্সার মোরশেদ আলমের আইটি সেন্টারের সফলতা গর্ব করার মতো,পঞ্চগড় জেলা তথা উত্তরবংগের তরুনদের ভাগ্য পরিবর্তনে ও ফ্রিলান্সিং কে এগিয়ে নিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ফ্রিলান্সার মোর্শেদ আলম।তার পাশে সকলকে সহায়তা করার আহবান জানান,এবং পাশে চান সকলকে।

রংপুর টুডে,

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এই ক্যাটেগরির আরো খবর
© All rights reserved 2021 | পারফেক্ট  মিডিয়া কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized BY LatestNews